মেহেরপুরে ৩৯ টি মুঠোফোন ও ৬০ হাজার নগদ টাকা উদ্ধার

 নিজস্ব প্রতিবেদক     ৮ আগষ্ট, ২০২৩ ১৯:১৫:০০নিউজটি দেখা হয়েছে মোট 217 বার

সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেল, মেহেরপুর কর্তৃক গত এক মাস যাবৎ হারিয়ে যাওয়া ৩৯ টি মোবাইল ফোন ও বিকাশে ভুলক্রমে চলে যাওয়া দুই জন ভিকটিমের ৬০,০০০ টাকা উদ্ধার করে প্রকৃত মালিকদেরকে হস্তান্তর করা হয়।

মেহেরপুর জেলা পুলিশের মাননীয় পুলিশ সুপার জনাব মোঃ রাফিউল আলম মহোদয়ের নির্দেশে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টার সময় একটি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনের পর উদ্ধারকৃত টাকা এবং মোবাইল ফোন সমূহ মেহেরপুরের পুলিশ সুপার প্রকৃত মালিকদের নিকট হস্তান্তর করেন।

আরও পড়ুন: মেহেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আজমল হোসেনের বিদায় সংবর্ধনা...

উক্ত সংবাদ সম্মেলনে জেলা পুলিশ সুপার জনাব মোঃ রাফিউল আলম বলেন, জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জনাব মোঃ কামরুল আহসান এর সার্বিক দিক নির্দেশনায় সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেল, মেহেরপুরের চৌকস টিম জেলার বিভিন্ন থানার জিডি এবং অভিযোগের প্রেক্ষিতে তথ্য প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার করে ভিকটিমদের নিকট থেকে ভুলক্রমে বিকাশে চলে যাওয়া দুই জনের ৬০,০০০ টাকা এবং হারিয়ে যাওয়া বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ৩৯ টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।


পুলিশ সুপার আরও বলেন, মোবাইল ফোন চুরি হলে নিকতস্থ থানায় শুধুমাত্র একটি জিডি করতে হবে। জিডিতে চুরি যাওয়া মোবাইলের আইএমইআই নাম্বার এবং সিম কার্ডের নাম্বার উল্লেখ করতে হবে। এরপর সংশ্লিষ্ট থানায় জিডি করার পর মেহেরপুর সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেল বরাবর একটি আবেদন করতে হবে। তাহলেই মোবাইলটি উদ্ধার করতে আমরা সক্ষম হব।


বাংলাদেশ পুলিশ এবং সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেল, মেহেরপুরের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে এবং মোবাইল ও নগদ টাকা ফেরত পেয়ে ভুক্তভোগীরা বলেন, মোবাইল হারানোর পর সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেল বরাবর একটা দরখাস্ত করেই খুব সহজেই মোবাইল ফোন গুলো ফিরে পেয়েছি এতে করে দেশের পুলিশের উপর আমাদের  আস্থা আরো বেড়ে গেছে।

আরও পড়ুন: মেহেরপুর পুলিশের সাপ্তাহিক মাস্টার প্যারেড অনুষ্ঠিত...

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন সহকারী পুলিশ সুপার এমদাদ হোসেন, মেহেরপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি সাইফুল আলম, এস আই মনির সহ মেহেরপুর জেলা সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেলের সদস্যরা।

নিজস্ব প্রতিবেদক