সন্ধান পাওয়া গেলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া বইয়ের মালিকের

 জবি প্রতিনিধি    ১ এপ্রিল, ২০২৪ ১২:৫০:০০নিউজটি দেখা হয়েছে মোট 395 বার

গত কিছুদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে একটা বইয়ের পৃষ্ঠার ছবি। যেখানে দেখা যায় বইটিকে খুব দাগিয়ে পড়া হয়েছে ৷

বিষয়টিকে ইতিবাচক ভাবেই দেখছেন মানুষ জন ৷ মন্তব্য ঘরে অনেকে মন্তব্য জানাচ্ছেন বইটি কার এ সম্পর্কে জানার জন্য।

অবশেষে সন্ধান মিললো বইটি যেভাবে দাগিয়ে পড়েছে তার। সেই ছেলেটির নাম রাফিউল মাসুদ। পড়াশোনা করছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি ডিপার্টমেন্টে।

এই বই সম্পর্কে জানতে চাইলে সে জানান, আমি রাফিউল মাসউদ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগে অধ্যয়নরত আছি আলহামদুলিল্লাহ।

বই দাগিয়ে পড়া বা না পড়া, ব্যাপারটা পুরোটাই ব্যক্তির ইচ্ছা স্বাধীন। HSC তে থাকতে টেক্সট বইয়ে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছিলাম, তার মধ্যে English For Today & বাংলা সাহিত্যপাঠ ও সহপাঠ খুব ভালো করে পড়েছিলাম।

আসলে টেক্সটবুকের প্রতি ভালোবাসার জায়গা থেকেই পড়তাম, পড়তেই হবে সেজন্য না। আর ব্যাকরণগত বিশ্লেষণ, অনুধাবন, ইত্যাদি ভালো করে বুঝার চেষ্টা করে লিখে রাখতাম।

আরও পড়ুন: জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে হামলায় আহত-১...

ফলশ্রুতিতে অনেক কিছু শিখতে পেরেছিলাম আলহামদুলিল্লাহ। যার ফিডব্যাক পেয়েছিলাম এডমিশন পরীক্ষাগুলোতে।

জাবি বি ইউনিটে ১৬ তম, ঢাবি বি ইউনিটে ১৬৬ তম, ঢাবি এ ১৫৫ তম, ঢাবি সি ২২১ তম, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ডি ইউনিটে ১২৩ তম, GST তে ১৫৬ তম, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪১৩ তম, বিইউপিতে আইন ও অর্থনীতি বিভাগের জন্য মনোনীত হয়েছিলাম আলহামদুলিল্লাহ। আমার সেশন ২২-২৩।

সবার প্রতি পরামর্শ জাস্ট একটাই, আপনারা HSC এর সময়গুলোকে পড়াশোনার স্বর্ণযুগ মনে করে টেক্সট ভিত্তিক পড়াশোনা করবেন, একাডেমিক এবং এডমিশনে ভালো করার জন্য বিশেষ করে বাংলা ও ইংরেজি বোর্ড বই দুটো অপরিসীম গুরুত্ব বহন করে। সকলের জন্য শুভকামনা।

জবি প্রতিনিধি