দোলাচলের ম্যাচে শেষ হাসি বাংলাদেশের

 অনলাইন ডেস্ক    ৮ জুন, ২০২৪ ১২:২৪:০০নিউজটি দেখা হয়েছে মোট 5 বার

লঙ্কানদের দেয়া ছোট লক্ষ্য তাড়ায় পাওয়ারপ্লেতেই ৩ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। তবে চতুর্থ উইকেটে বড় জুটি গড়ে শঙ্কার মেঘ কাটিয়ে দেন তাওহীদ হৃদয় এবং লিটন দাস। দ্রুত সময়ে এই দুই ব্যাটার আউট হলে আবারও চাপে পড়ে টাইগাররা। তবে সেই চাপ কাটিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

যুক্তরাষ্ট্রের ডালাসে আজ শনিবার (৮ জুন) শ্রীলঙ্কাকে ২ উইকেটে হারিয়ে বিশ্বকাপে শুভসূচনা করেছে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার দেয়া ১২৫ রান তাড়া করতে নেমে ১ ওভার হাতে রেখে জিতেছে টাইগাররা।

এই জয়ে 'ডি' গ্রুপের পয়েন্ট টেবিলে তিনে উঠে এসেছে বাংলাদেশ। টাইগারদের সমান একটি করে জয় নিয়ে প্রথম এবং দ্বিতীয় অবস্থানে আছে যথাক্রমে দক্ষিণ আফ্রিকা এবং নেদারল্যান্ডস। ১ ম্যাচ হেরে চারে নেপাল।

দুই ম্যাচের দুটিতেই হেরে তলানিতে শ্রীলঙ্কা। ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে প্রথম ওভারেই সৌম্য সরকারের উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ধনঞ্জয়া ডি সিলভার বলে লেগ সাইডে শট খেলতে গিয়ে মিড অনে ক্যাচ তুলে দেন সৌম্য। দলীয় ১ রানে প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

দ্বিতীয় ওভারে নুয়ান থুসারা বোল্ড করেন তানজিম তামিমকে। ৬ রানে ২ উইকেট হারানোর পর দেখেশুনে খেলতে শুরু করেন অধিনায়ক নাজমুল শান্ত এবং লিটন দাস। দুজনে মিলে ২২ রানের জুটিও গড়েন। তবে ষষ্ঠ ওভারে থুসারার বলে ড্রাইভ করতে গিয়ে সহজ ক্যাচ তুলে দেন শান্ত। ১৩ বলে ৭ রান করে ফেরেন অধিনায়ক।দ্রুত ৩ উইকেট হারানোর পর লিটন এবং হৃদয়ের ব্যাটে চাপ সামলে ওঠে বাংলাদেশ।

আরও পড়ুন: মোদির শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ঢাকা ত্যাগ প্রধানমন্ত্রীর...

চতুর্থ উইকেটে ৬৩ রানের জুটি গড়েন লিটন এবং হৃদয়। বাংলাদেশ ইনিংসের দ্বাদশ ওভারে ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গাকে পরপর ৩ বলে ৩ ছক্কা মেরে পরের বলে আউট হন হৃদয়। ৪ ছক্কা ও ১ চারে ২০ বলে ৪০ রান করেছেন হৃদয়। হৃদয় যখন আউট হন, তখন ৫০ বলে ৩৪ রান দরকার ছিল বাংলাদেশের। উইকেটও ছিল ৬টি। কিন্তু দ্রুত সময়ে কয়েকটি উইকেট হারিয়ে এই সহজ লক্ষ্যটাকেও অনেক কঠিন বানিয়ে ফেলে বাংলাদেশ।

হৃদয়ের বিদায়ের পরের ৩ ওভারে কেবল ৮ রান করে বাংলাদেশ, সঙ্গে লিটন দাসের গুরুত্বপূর্ণ উইকেটও হারায়। ৩৮ বলে ৩৬ রান করে হাসারাঙ্গার বলে এলবিডব্লিউ হন লিটন। গুরুত্বপূর্ণ সময়ে দায়িত্ব নিতে পারেননি অভিজ্ঞ সাকিব আল হাসান।

১৪ বলে ৮ রান করে তিনি আউট হলে আবারও হারের শঙ্কা ভর করে বাংলাদেশের ওপর। বাংলাদেশ ইনিংসের ১৮তম ওভারে পরপর দুই বলে দুই উইকেট নিয়েছেন এই পেসার। জয় থেকে তখনও ১১ রান দূরে বাংলাদেশ।

অনলাইন ডেস্ক